কথোপকথন - পূর্ণেন্দু পত্রীর প্রেমের কবিতা Skip to main content

কথোপকথন - পূর্ণেন্দু পত্রীর প্রেমের কবিতা

kothopokothon-purnendu-patri-er-premer-kobita

কি করছো? 
ছবি আকঁছি।
ওটা তো একটা বিন্দু।
তুমি ছুঁয়ে দিলেই বৃত্ত হবে। কেন্দ্র
হবে তুমি। আর আমি হবো বৃত্তাবর্ত।
কিন্তু আমি যে বৃত্তে আবদ্ধ হতে চাই
না। আমি চাই অসীমের অধিকার।
একটু অপেক্ষা করো। . . . এবার দেখো।
ওটা কি? ওটা তো মেঘ।
তুমি ছুঁয়ে দিলেই আকাশ হবে।
তুমি হবে নি:সীম দিগন্ত। আর
আমি হবো দিগন্তরেখা।
কিন্তু সে তো অন্ধকার হলেই
মিলিয়ে যাবে। আমি চিরন্তন হতে চাই।
আচ্ছা, এবার দেখো।
একি! এ তো জল। 
তুমি ছুঁয়ে দিলেই সাগর হবে। তিনভাগ
জলের তুমি হবে জলকন্যা। আর
আমি হবো জলাধার।
আমার যে খন্ডিতে বিশ্বাস নেই। আমার
দাবী সমগ্রের। 
একটু অপেক্ষা করো। এবার চোখ খোল।
ওটা কি আঁকলে? ওটা তো একটা হৃদয়।
হ্যাঁ, এটা হৃদয়। 
যেখানে তুমি আছো অসীম মমতায়,
চিরন্তন ভালোবাসায়। এবার বলো আর
কি চাই তোমার?
সারাজীবন শুধু ওখানেই থাকতে চাই।

কবিতাটি ভালো লাগলে শেয়ার করবেন

Comments